সাহেবগঞ্জ-বাগদাফার্মে ১৪৪ ধারা অবিলম্বে প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছে জাতীয় আদিবাসী পরিষদ

সাহেবগঞ্জ-বাগদাফার্মে ১৪৪ ধারা অবিলম্বে প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছে জাতীয় আদিবাসী পরিষদ

১১ আগস্ট ২০১৬, ঢাকা: গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার সাহেবগঞ্জ-বাগদাফার্ম ইক্ষু খামারের এক কিলোমিটার এলাকায় গত ৯ আগস্ট ২০১৬ তারিখ মঙ্গলবার সকাল ৬টা থেকে স্থানীয় প্রশাসনের জারি করা ১৪৪ ধারা বলবৎ রাখা এবং একই দিনে জয়পুরহাটে আদিবাসী দিবসের অনুষ্ঠান উদযাপন করতে না দেওয়ার ঘটনায় জাতীয় আদিবাসী পরিষদ এক সংবাদ বিবৃতিতে গভীর উদ্বেগ প্রকাশসহ সাহেবগঞ্জ-বাগদাফার্ম ইক্ষু এলাকায় জারিকৃত ১৪৪ ধারা অবিলম্বে প্রত্যাহারের দাবি জানিয়ে জাতীয় আদিবাসী পরিষদের সভাপতি এক বিবৃতি জানিয়েছেন।
বিবৃতিতে তিনি আরও জানিয়েছেন , আন্তর্জাতিক আদিবাসী দিবস উপলক্ষে সাহেবগঞ্জ-বাগদাফার্ম ভূমি উদ্ধার সংগ্রাম কমিটি, জাতীয় আদিবাসী পরিষদ, গোবিন্দগঞ্জ আদিবাসী ফেডারেশন, পারগানা পরিষদ ও জনউদ্যোগ এর যৌথ উদ্যোগে গত ৯ আগস্ট ২০১৬ তারিখে গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার সাহেবগঞ্জ-বাগদাফার্ম ইক্ষু খামারের হরিনমারি চত্ত্বরে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয় এবং একইদিন আদিবাসীদের এ অনুষ্ঠানটিকে বানচাল করার জন্য মিল কর্তৃপক্ষের যোগসাজসে ইক্ষু খামারের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা একই জায়গায় সমাবেশের ডাক দেয়। এর ফলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আব্দুল হানড়বান ৮ আগস্ট ২০১৬ তারিখ বিকালে সাহেবগঞ্জ-বাগদাফার্ম ইক্ষু এলাকার ১ কিলোমিটারের মধ্যে ১৪৪ ধারা জারি করেন। যা এখনো কার্যকর আছে। ফলে এলাকার আদিবাসী-বাঙ্গালিদের স্বাভাবিক জীবন বাধাগ্রস্থ হচ্ছে এবং তারা আতঙ্কিত দিনযাপন করছে। তাই অনতিবিলম্বে এলাকাবাসীর জীবন স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরিয়ে আনতে ১৪৪ ধারা প্রত্যাহারের দাবি জানাচ্ছি। অন্যদিকে, জয়পুরহাট জেলা সদরের পাচুর মোড়ে গত ৯ আগস্ট ২০১৬ তারিখ আন্তর্জাতিক আদিবাসী দিবস উপলক্ষে জাতীয় আদিবাসী পরিষদ, জয়পুরহাট জেলা শাখার উদ্যোগে আয়োজিত র‍্যালি ও সমাবেশ স্থানীয় প্রশাসনের বাধার কারনে অনুষ্ঠিত হয়নি। এ ধরনের বাধা প্রদান দেশের জনগণের বাকস্বাধীনতার উপর হস্তক্ষেপ বলে মনে করছি। এর আগেও ২০১২ সালে জয়পুরহাটের পুলিশ প্রশাসন আদিবাসী দিবসের র‍্যালিতে লাঠিচার্জ করে এবং অনুষ্ঠান উদযাপনে বাধা প্রদান করে। যেখানে সারা বিশ্ব আনন্দের সাথে আন্তর্জাতিক আদিবাসী দিবস পালন করছে এবং বাংলাদেশের আদিবাসীরাও দেশের বিভিন্ন এলাকায় দিবসটি উদযাপন করছে সেখানে গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জের সাহেবগঞ্জ-বাগদাফার্ম এলাকায় এখনো ১৪৪ ধারা বলবৎ রাখা এবং জয়পুরহাটে আদিবাসী দিবসের অনুষ্ঠান করতে না দেওয়ার ঘটনায় আমরা তীব্র নিন্দা ও গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করছি। আমরা লক্ষ্য করছি উপরোক্ত দু জায়গাতেই আদিবাসীরা দীর্ঘদিন ধরে ভূমির জন্য আন্দোলন-সংগ্রাম করে আসছেন। এবারের আদিবাসী দিবসে বাধা প্রদান সেই আন্দোলন সংগ্রামকে নসাৎ করারও একটি প্রচেষ্টা হতে পারে বলে আমরা মনে করছি।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked with *

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক মন্তব্য