গাইবান্ধায় সাঁওতালদের বিক্ষোভ মিছিল

গাইবান্ধায় সাঁওতালদের বিক্ষোভ মিছিল

নিজস্ব সংবাদদাতা: সাঁওতাল হত্যা, অগ্নিসংযোগ, লুটপাট ও ভাংচুর মামলার আসামিদের গ্রেফতার ও দ্রুত সুষ্ঠু তদন্ত প্রতিবেদন দেয়ার দাবিতে সাঁওতালরা আজ বুধবার গাইবান্ধায় পিবিআই অফিসের সম্মুখে অবস্থান, স্মারকলিপি প্রদান ও বিক্ষোভ মিছিলের কর্মসূচি পালন করে। সাহেবগঞ্জ বাগদাফার্ম-ভূমি উদ্ধার সংগ্রাম কমিটি, জাতীয় আদিবাসী পরিষদ, বাংলাদেশ আদিবাসী ইউনিয়ন, জনউদ্যোগ ও আদিবাসী বাঙালি সংহতি সমাবেশ এই কর্মসূচির আয়োজন করে।

গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার সাঁওতাল পল্লী থেকে সহস্রাধিক আদিবাসী সাঁওতাল ও বাঙালিরা নানা রকম দাবি সম্বলিত ফেস্টুন, ব্যানারসহ গাইবান্ধা শহরে এসে জেলা শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। পরে বিক্ষোভ মিছিলটি পিবিআই অফিসের সম্মুখে অবস্থান কর্মসূচি পালন করার লক্ষ্যে এগিয়ে যায়। কিন্তু পুলিশ মিছিলটিকে পলাশপাড়া মোড়ে ডিবি রোডে বাঁধা প্রদান করে। বাঁধা পেয়ে সাঁওতালরা ওই স্থানে রাস্তার উপর বসে পড়ে এবং তাদের সকল দাবি অবিলম্বে বাস্তবায়নের আবেদন জানায়। এসময় ডিবি রোডের কিছু সময়ের জন্য যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

অবস্থান কর্মসূচি চলাকালে বক্তারা বলেন, ২০১৬ সালের ৬ নবেম্বর আদিবাসী সাঁওতাল পল্লীতে সন্ত্রাসীদের হামলা ও পুলিশের গুলিতে নিহত তিন সাঁওতাল শ্যামল হেমরম, মঙ্গল মার্ডি ও রমেশ টুডু, আহত হন অসংখ্য সাঁওতাল, অগ্নিসংযোগ, লুটপাট ও নির্যাতনের ঘটনা ঘটানো হয়। এমনকি আদিবাসী সাঁওতাল শিশুদের স্কুলটি সন্ত্রাসীরা পুড়িয়ে দেয়। ঘটনার পর আদিবাসী সাঁওতালরা হত্যা মামলা দায়ের করলেও ঘটনার আড়াই বছর পেরিয়ে গেলেও এজাহারভূক্ত আসামি সাবেক সংসদ সদস্য, সাপমার ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শাকিল আকন্দ বুলবুলসহ উল্লেখযোগ্য কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি। বক্তারা অবিলম্বে সাঁওতাল হত্যাকান্ড মামলার আসামিদের গ্রেফতার ও দ্রুত সুষ্ঠু তদন্ত প্রতিবেদন দেয়ার জোর দাবি জানান। এব্যাপারে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ না করলে আগামীতে বৃহত্তর আন্দোলনে গড়ে তোলা হবে।

সড়কে অবস্থান কর্মসূচি চলাকালে বক্তব্য রাখেন সাহেবগঞ্জ-বাগদা ফার্ম ভূমি উদ্ধার সংগ্রাম কমিটির সভাপতি ফিলিমন বাসকে, সিপিবির মিহির ঘোষ, আদিবাসী-বাঙালি সংহতি পরিষদের আহবায়ক অ্যাড. সিরাজুল ইসলাম বাবু, জাতীয় আদিবাসী পরিষদের কেন্দ্রীয় সভাপতি রবীন্দ্রনাথ সরেন, বাসদের গোলাম রব্বানী, ওয়ার্কার্স পাটির নেতা অশোক সরকার, অ্যাড. মুরাদ জামান রব্বানী, আদিবাসী নেতা বার্নাবাশ, প্রিসিলা মুরমু, স্বপন শেখ, সুফল হেমব্রম, হবিবুর রহমান, সিপিবি তাজুল ইসলাম, আদিবাসী নেতা রাফায়েল হাসদা, মানবাধিকার কর্মী আব্দুল খালেক প্রমূখ।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked with *

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক মন্তব্য