নওগাঁর পোরশায় আদিবাসীদের চার বাড়িতে লুটপাট ও অগ্নিসংযোগ

নওগাঁর পোরশায় আদিবাসীদের চার বাড়িতে লুটপাট ও অগ্নিসংযোগ

পূর্ব শত্রুতার জের ধরে নওগাঁর পোরশা উপজেলার রঘুনাথপুর গ্রামে আদিবাসীদের বাড়ি ভাংচুর, জিনিসপত্র লুটপাট ও খড়ের পালায় আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছে প্রতিপক্ষ সন্ত্রাসীরা।

ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার দিনগত রাত ২টার দিকে। এসময় সন্ত্রাসীরা ওই গ্রামের কিষ্ট দিগ্যা, রবিন্দ্রনাথ, মংলা ও কমলের বাড়ি ভাংচুর, জিনিসপত্র লুটপাট ও খড়ের পালায় আগুন লাগিয়ে দিয়ে ব্যাপক ক্ষতিসাধন করে পালিয়ে যায়। ক্ষতিগ্রস্ত কিস্ট জানান, ওই রাতে ৪০-৫০জনের একদল সন্ত্রাসী দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে তাদের বাড়ির সকল লোকজনকে জিম্মি করে বাড়িতে ভাংচুর চালায় এবং টিন, ছাগল, টাকা, চালসহ বিভিন্ন জিনিসপত্র লুট করে নিয়ে যায়। এসময় তারা খড়ের পালায় আগুন লাগিয়ে চলে যায়।

খবর পেয়ে মহাদেবপুর উপজেলার ফায়ার সার্ভিসের লোকজন এসে আগুন নিভায়। তবে তারা একই গ্রামের ভিকুরাম উরাওয়ের ছেলে ভোলানাথ ভুমলের সাথে জায়গা নিয়ে গন্ডগোল থাকায় তার লোকজনই বাড়ি ভাংচুর ও লুটপাট এবং খড়ে পালায় আগুন দিয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন।

এ ব্যাপারে মশিদপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান শাহাদাত হোসেন শাহ বলেন, ভোলানাথ এবং কিস্ট গংদের মধ্যে জায়গা নিয়ে গন্ডগোল রয়েছে। তবে ঘটনাটি কে ঘটিয়েছে তা তিনি বলতে পারছেনা বলে জানান।

পোরশা থানা ডিউটি অফিসার এসআই সাখাওয়াত হোসেন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, তারা খবর পেয়ে ঘটনা স্থলে গিয়েছিলেন। তবে কেউ থানায় কোন অভিযোগ করেননি বলেও জানান তিনি ।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked with *

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক মন্তব্য