নওগাঁয় আদিবাসী নারীকে ধর্মান্তকরণ, বাবার অপহরণ মামলা

নওগাঁয় আদিবাসী নারীকে ধর্মান্তকরণ, বাবার অপহরণ মামলা

নওগাঁ জেলার ধামইরহাটে আদিবাসী নারীকে জোরপূর্বক বিয়ে করে ধর্মান্তর করার অভিযোগে আরিফুজ্জামান নামের এক যুবকের বিরুদ্ধে অপহরণ মামলা দায়ের করা হয়েছে। ভিকটিমের বাবা যোসেফ হেমব্রম বাদী হয়ে গত ১৮ সেপ্টেম্বর, ধামইরহাট থানায় এ মামলা দায়ের করে।

ধামইরহাট থানা সূত্রে জানা যায়, উত্তর চকযদু গ্রামের শিমুল চৌধুরীর ছেলে ও ধামইরহাট উপজেলা পরিষদের অফিস সহায়ক আরিফুজ্জামান লক্ষীতাড়া গ্রামের যোসেফ হেমব্রমের মেয়ে অর্পিতা হেমব্রমের সাথে প্রেমের সম্পর্কে এফিডেভিটের মাধ্যমে বিয়ে করে। এতে মেয়ের বাবা ধামইরহাট থানায় নারী শিশু নির্যাতন দমন আইনে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সাবিনা এক্কাকে ১ নং আসামী ও আরিফুজ্জামানকে ২ নং আসামী করে মামলা দায়ের করে।

মামলায় যোসেফ হেমব্রম অভিযোগ করে বলেন, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সাবিনা এক্কা আমার মেয়েকে পুলিশে চাকরি দেওয়ার নাম করে উপজেলা পরিষদে নিয়মিত ডেকে এনে অফিস সহায়ক আরিফুজ্জামানের সাথে অবৈধ সম্পর্ক গড়ে তুলতে বাধ্য করে।

এ ব্যাপারে অভিযুক্তা সাবিনা এক্কা বলেন, ‘আমাকে ষড়যন্ত্র করে ফাঁসানো হয়েছে। কে বাদী, কে বিবাদী আমি কিছুই জানি না।’
বিষয়টি সম্পর্কে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সোহেল রানা জানিয়েছেন, স্ত্রী সন্তান থাকা সত্ত্বেও আদিবাসী নারীকে জোরপূর্বক বিয়ে করে ধর্মান্তরিত করায় অফিস সহায়ক আরিফুজ্জামান কে বরখাস্ত করা হবে।

ধামইরহাট থানার ওসি জাকিরুল ইসলাম বলেন, ‘মেয়ে যেহেতু প্রাপ্ত বয়স্কা, তাই মামলাটি আদালতে পাঠানো হয়েছে। আদালত মামলাটির সঠিক সুরাহা করবে।’

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked with *

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক মন্তব্য