নেত্রকোণায় আদিবাসী গৃহবধুকে ধর্ষণ চেষ্ঠা, থানায় মামলা

নেত্রকোণায় আদিবাসী গৃহবধুকে ধর্ষণ চেষ্ঠা, থানায় মামলা

নেত্রকোণার বারাহাট্টা উপজেলাধীন সদর ইউনিয়নের কাশতলা(কাশবন) গ্রামে এক আদিবাসী গৃহবধুকে ধর্ষণ চেষ্ঠার অভিযোগ পাওয়া গেছে। অভিযুক্ত ব্যক্তির নাম আব্দুস ছাত্তার (২৮)। সে একই এলাকার জুবেদ আলীর ছেলে এবং দুই সন্তানের জনক। উক্ত ঘটনায় আব্দুস ছাত্তারকে আসামী করে বারহাট্টা থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। এলাকাবাসীর দাবী, অভিযুক্ত ব্যক্তির বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ নতুন কিছু নয়।

জানা যায়, কাশবন উচ্চ বিদ্যালয় সংলগ্ন একটি দোকান করেন অভিযুক্ত আব্দুস ছাত্তার। আর দুই সন্তানের জননী ভিকটিমের বাড়িও স্কুলটির কাছাকাছি। ভিকটিমের স্বামীকে পেশাগত কারণে প্রায়শই বাড়ির বাহিরে যেতে হয়। সেই অবস্থার সুযোগ নিয়ে আসামী ভিকটিমকে বিভিন্ন ধরনের কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছিল। সর্বশেষ ১৭ অক্টোবর বৃহস্পতিবার দুপুর বারোটার দিকে বাঁশ-বেতের কাজ করতে থাকা অবস্থায় বাচ্চাদের সামনেই ধর্ষণের উদ্দেশ্যে ভিকটিমের উপর ঝাপিয়ে পরে ছাত্তার। তখন ভিকটিম দা হাতে প্রতিরোধ করলে আসামী পালাতে গিয়ে পাশের পুকুরে পরে যায় । এই সময়ের মধ্যে আশপাশের লোকজন চলে এলে সকলের সামনে ভিকটিমকে প্রাণ নাশের হুমকি দিয়ে আসামী চলে যায়। এই বিষয়ে ১৯ অক্টোবর বারহাট্টা থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়। কিন্তু আজ অবধি মামলার একমাত্র আসামী গ্রেফতার না হওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন মামলার বাদী ও এলাকাবাসী।

এব্যাপারে বারহাট্টা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বদরুল আলম সাংবাদিকদের জানান, মামলা হয়েছে। আসামীকে গ্রেফতারে জোর চেষ্ঠা চলছে। খুব শীঘ্রই তাকে আইনের আওতায় নিয়ে আসতে পারব বলে আশা করছি।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked with *

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক মন্তব্য