মধুপুরে নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে পীরেন স্নালকে স্মরণ

মধুপুরে নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে পীরেন স্নালকে স্মরণ

টাঙ্গাইল জেলার মধুপুরে শুক্রবার ৩রা জানুয়ারী ইকোপার্ক বিরোধী আন্দোলনের শহীদ পীরেন স্নালের ১৬তম মৃত্যুবার্ষিকীতে নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে তাকে স্মরণ করা হয়েছে।

২০০৪ সালের ৩ জানুয়ারি মধুপুর আবিমা গড় অঞ্চলের ইকোপার্ক বিরোধী ভূমিরক্ষা আন্দোলনে বনরক্ষীদের গুলিতে নিহত হন পীরেন স্নাল। প্রতি বছর আবিমাবাসী এবং বিভিন্ন সংগঠন এই দিনটিকে নানা আয়োজনের মধ্যদিয়ে স্মরণ করে থাকেন।

১ম পর্বের আলোচনা সভাঃ

সকালে শহীদ পীরেন স্নালের সমাধিস্থলে (খিম্মা) ১ম পর্বের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে সূচনা বক্তব্য রাখেন অনুষ্ঠানের সঞ্চালক জিএসএফ-এর সাধারণ সম্পাদক লিয়াং রিছিল। উক্ত আলোচনায় অংশ নেন বিরাট মানখিন, মধুপুর থানা শাখার জিএসএফ-এর সহ-সভাপতি তুষার নেকলা, বাগাছাসের ঢাকা মহানগর শাখার আহ্কায়ক ডন যেত্রা, তরুণ লেখক এবং ব্লগার জাডিল মৃ, জিএসএফ-এর ঢাকা মহানগর শাখার সভাপতি বলিন দফো প্রমুখ।

বক্তারা তাদের বক্তব্যে শহীদ পীরেন স্নালকে গভীর শ্রদ্ধা ভরে স্মরণ করে বলেন, পীরেনের আত্মত্যাগ কোনোদিন ভুলার নয়, বরং আগামী দিনের জন্য প্রেরণা। আগামী দিনে যে কোনো ষড়যন্ত্র পীরেনের মতো রক্ত দিয়ে প্রতিহত করা হবে।

সমাধিতে খুটুপ পড়ানো ও শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ

এরপর শহীদ পীরেন স্নালের ১৬তম মৃত্যুবার্ষিকীতে খিম্মায় খুতুপ পরান মতেন্দ্র সিমসাং। দীর্ঘ ১৬ বছর ধরে মতেন্দ্র সিমসাং পীরেন স্নালের খীম্মায় খটুপ পড়াচ্ছেন।

খুটুপ পড়ানোর শেষে বিভিন্ন সংগঠনের শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করেন। শ্রদ্ধাঞ্জলি দেন জয়েনশাহী আদিবাসী উন্নয়ন পরিষদ, আদিবাসী ফোরাম, বাংলাদেশ গারো ছাত্র সংগঠন(বাগাছাস), গারো স্টুডেট ফেডারেশন(জিএসএফ),বেদুরিয়া গ্রামবাসী, জাঙ্গালীয়া গ্রামবাসী এবং বিভিন্ন সংগঠন।

২য় পর্বের আলোচনা সভাঃ

বেলা ১২টায় মূল অনুষ্ঠান শুরু হয়। পীরেন স্নালের খীম্মায় বিকসন নকরেকের প্রার্থনার মধ্য দিয়ে আলোচনা সভা শুরু হয়। আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, আদিবাসী ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অলিক মৃ , বাগাছাস কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি জন যেত্রা , জয়েনশাহী আদিবাসী উন্নয়ন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক হেরিৎ সিমসাং, আদিবাসী ফোরামের সহ-সভাপতি অজয় এ মৃ, জয়েনশাহী আদিবাসী উন্নয়ন পরিষদের সভাপতি ইউজিন নকরেক প্রমুখ।

এ সময় বক্তারা দীর্ঘ সময় পার হলেও পীরেন হত্যার সুষ্ঠু বিচার না হওয়া, বন মামলা দিয়ে হয়রানিসহ নানা বিষয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

ফুটবল টুর্নামেন্টঃ

বিকেলে মধুপুর ইকোপার্ক বিরোধী আন্দোলনে শহীদ পীরেন স্মাল স্মরণে আয়োজিত ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বেদুরিয়া প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে এ খেলা হয়।

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুব ও ক্রীড়া এবং দুর্যোগ ও ত্রাণ সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য জুয়েল আরেং এমপি।

বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন মধুপুর উপজেলা চেয়ারম্যান ছয়োয়ার আলম খান, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান যষ্ঠিনা নকরেক, জয়েনশাহী আদিবাসী উন্নয়ন পরিষদের সভাপতি ইউজিন নকরেক, বাংলাদেশ গারো স্পোর্টিং ক্লাবের সভাপতি বিরেশ দালবৎ, সমাজ সেবক হেরিদ সিমসাং, যুব নেতা বুলবুল রিছিল, বাগাছাসের সাবেক নেতা শ্যামল মানখিন, আসনাবা সংগঠনের সমন্বয়ক শাওন রুগা প্রমুখ।

ফাইনাল খেলায় গেৎচ্ছুয়া একাদশ ও তেলকী একাদশ অংশ নেয়। তুমুল প্রতিযোগিতামূলক খেলায় তেলকী একাদশ গেৎচ্ছুয়া একাদশ কে ৩-০ গোলে পরাজিত করে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে। খেলা শেষে অতিথিবৃন্দ খেলোয়াড়দের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন।

সংবাদ ও ছবি কৃতজ্ঞতাঃ janajatirkantho.com, thokbirimnews.com
source: janajatirkantho.com, thokbirimnews.com

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked with *

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক মন্তব্য