সিটি নির্বাচনে ‘ভোট বর্জনের হুম‌কি’ হিন্দু সম্প্রদায়ের

সিটি নির্বাচনে ‘ভোট বর্জনের হুম‌কি’ হিন্দু সম্প্রদায়ের

ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ভোটের তারিখ ৩০ জানুয়ারির পরিবর্তে অন্য কোনও দিন না দি‌লে হিন্দু সম্প্রদায় ভোট বর্জন কর‌বে ব‌লে আগাম হুমকি দিয়েছে বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু ছাত্র মহাজোট।

সরস্বতী পূজার দিন উত্তর ও দক্ষিণ সিটিতে ভোটের তারিখ নির্ধারণের প্রতিবাদে ও তারিখ পরিবর্তনের দাবিতে শুক্রবার (১০ জানুয়ারি) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত মানববন্ধনে তারা এ দাবি জানান।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, ‘আগামী ২৯ ও ৩০ জানুয়ারি বিদ্যাদেবী সরস্বতী পূজার দিন। হিন্দু সম্প্রদায়ের ছাত্র-ছাত্রীসহ সকল পেশার মানুষ সকালে উপবাস থেকে জ্ঞানের দেবী সরস্বতীর পূজা ও বিশেষ আরাধনা করে থাকেন। কিন্তু দুঃখের বিষয়, বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন ৩০ জানুয়ারি সরস্বতী পূজার দিন ঢাকা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ভোটগ্রহণের দিন ধার্য করেছেন।’

বক্তারা আরও বলেন, ‘ঢাকার বিভিন্ন স্কুল-কলেজ, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সরস্বতী পুজা হয়ে থাকে। ৩০ জানুয়ারি সিটি করপোরেশন নির্বাচনের ভোট হলে হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা সরস্বতী পূজা করতে পারবে না। ভোটের এ তারিখ পরিবর্তন না করলে একদিকে যেমন হিন্দু সম্প্রদায় পূজা আরাধনা রে‌খে ভোট কেন্দ্রে যেতে পারবে না অন্যদিকে স্কুল-কলেজে ভোট কেন্দ্র স্থাপনের ফলে স্কুল-কলেজে সরস্বতী পূজাও বন্ধ হয়ে যাবে।’

তারা অভিযোগ করে বলেন, ‘সরকার ইচ্ছাকৃতভা‌বে হিন্দু সম্প্রদায়কে ধর্মবিমুখ করার উদ্দেশ্যে হিন্দু সম্প্রদায়ের পূজার দিনে ভোট অনুষ্ঠানের তারিখ বেছে নিয়েছে। এ তারিখ পরিবর্তন করে সিটি নির্বাচনে ভোটের নতুন তারিখ ঘোষণার জন্য নির্বাচন কমিশন ও সরকারের প্রতি আবেদন জানাচ্ছি। অন্যথায় হিন্দু সম্প্রদায় ভোট বর্জন করতে বাধ্য হবে।’

হিন্দু ছাত্র মহাজোটের সভাপতি সাজেন কৃষ্ণ বল-এর সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন- সংগঠনটির যুগ্ম মহাসচিব মনিশঙ্কর মন্ডল, ছাত্রবিষয়ক সম্পাদক সুমন সরকার, ঢাকা জেলার সভাপতি অ্যাডভোকেট উজ্জ্বল কুমার মন্ডল, ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক শ্যামল ঘোষ ও সিনিয়র সহ-সভাপতি প্রণব হালদার প্রমুখ।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked with *

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক মন্তব্য