রাঙ্গামাটিতে হিন্দু মন্দিরে হামলাঃ প্রতিমা ভাঙচুর ও দানবাক্স লুট

রাঙ্গামাটিতে  হিন্দু মন্দিরে হামলাঃ প্রতিমা ভাঙচুর ও দানবাক্স লুট

গতকাল ১২ মে ২০২০ রাতে রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা শহরে দুস্কৃতিকারী কর্তৃক এক হিন্দু মন্দিরে সাম্প্রদায়িক হামলার ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। হামলায় একটি হিন্দু ধর্মীয় মূর্তি ভাঙচুর করা হয় এবং একটি দানবাক্স ভেঙে টাকা লুট করে নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা।

রাঙ্গামাটি শহরের ফিসারি বাঁধ এলাকায় শ্রী শ্রী মগদেশ্বরী মায়ের মন্দিরে এ হামলার ঘটনা ঘটে বলে জানা গেছে। এটি রাঙ্গামাটিতে হিন্দু মন্দিরের উপর প্রথম হামলা, প্রতিমা ভাঙচুর ও লুটপাটের ঘটনা। এই ঘটনায় হিন্দু সম্প্রদায়ের স্থানীয় অনেক ব্যক্তি এবং বহু প্রগতিশীল ব্যক্তিত্ব সামাজিক মাধ্যমসহ নানাভাবে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন এবং প্রতিবাদ জানিয়েছে।

জানা গেছে, মন্দিরের আঙিনায় রাঙ্গামাটি শহরের একটি রেস্তোরার কয়েকটি খাবারের প্যাকেট পড়ে থাকতে দেখা যায়। উক্ত প্যাকেটগুলো এই হামলায় জড়িতরাই রেখে গেছে বলে ধারণা করছেন মন্দির কমিটির নেতৃবৃন্দ।

রাঙ্গামাটির সংবাদকর্মী ও হিন্দু সম্প্রদায়ের সদস্য নন্দন দেবনাথ তার ফেসবুক স্ট্যাটাসে লিখেছেন, ‘সারাদেশে সাম্প্রদায়িক হামলায় মন্দির ভাঙচুর হলেও রাঙ্গামাটি জেলাতে এই ঘটনা কখনো ঘটেনি। তবে গতকাল রাতে কে বা কারা রাঙ্গামাটিতে প্রথমবারের মতো ফিসারী বাঁধ এলাকায় শ্রী শ্রী মগদেশ্বরী মায়ের মন্দিরে হামলা চালিয়ে মন্দিরের প্রতিমা ভাঙচুর করে এবং দানবাক্সের টাকা চুরি করেনিয়ে যায়।’

এদিকে রাঙ্গামাটির পূজা উৎযাপন কমিটির সভাপতি বাদল কান্তি দে এবং সাধারন সম্পাদক স্বপন কান্তি মহাজন এ ঘটনার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বলেন, ‘যখন সারা দেশের মানুষ করোনা আতংকে ঘর বন্দি জীবন কাটাচ্ছে ঠিক সেসময় সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠী এ হামলা চালিয়ে মূর্তি ভাঙচুর করছে। এই ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করে দোষী ব্যক্তিদের শাস্তি দাবিও জানান তাঁরা।

রাঙ্গামাটি কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ কবির হোসেন জানান, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে।প্রতিমা ভাঙাচোরা অবস্থায় দেখেছি। তবে কারা ঘটিয়েছে আমরা এখনো জানতে পারছি না। ঘটনা তদন্ত করে আমরা যথাযথ আইনী ব্যবস্থা নিবো।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked with *

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক মন্তব্য