বাজেটে ইন্টারনেট সংযোগ, অনলাইন কেনাকাটা, মটরসাইকেল ও অন্যান্য ইলেকট্রনিক্স পণ্যের দাম বাড়ছে

বাজেটে ইন্টারনেট সংযোগ, অনলাইন কেনাকাটা, মটরসাইকেল ও অন্যান্য ইলেকট্রনিক্স পণ্যের দাম বাড়ছে

২০১৭-১৮ অর্থবছরের বাজেট পেশ করছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। আজ বৃহস্পতিবার বেলা দেড়টায় জাতীয় সংসদে বাজেট উত্থাপন শুরু করেন তিনি। দেশের ৪৬তম, আওয়ামী লীগ সরকারের ১৭তম এবং অর্থমন্ত্রীর একাদশ বাজেট প্রস্তাব এটি।
আগামী অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে ব্যয় ধরা হয়েছে ৪ লাখ ২৬৬ কোটি টাকা, যা চলতি অর্থবছরের মূল বাজেট ৩ লাখ ৪০ হাজার ৬০৫ কোটি টাকা থেকে ২৬ শতাংশ বেশি। চলতি অর্থবছরের সংশোধিত বাজেট ৩ লাখ ১৭ হাজার ১৭৪ কোটি টাকা থেকে আগামী বাজেটের আকার বেশি প্রায় ৮৪ হাজার কোটি টাকা।
প্রস্তাবিত বাজেটে সম্পুরক শুল্ক কমানোয় কমতে যাচ্ছে কৃষিপণ্যের সংরক্ষণ ব্যয়, লিভার সংক্রান্ত জটিল রোগের ওষুধ, পোল্ট্রি ফিডের দাম। দেশেই উৎপাদন হয় এমন পণ্যের শিল্পকে উৎসাহিত করতে বিদেশ থেকে আনা একই ধরণের পণ্যের সম্পুরক শুল্ক বাড়ানোর প্রস্তাব করা হয়েছে। তবে,শুল্ক কাঠামোতে কোন পরিবর্তন না আসায় স্থিতিশীল থাকবে সব ধরণের ভোগ্যপণ্যের বাজার। বাজেটে যে সব পণ্যের দাম বাড়বে।

২০১৫-১৬ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে মুল্য সংযোজন করের নতুন আইনের সঙ্গে সঙ্গতি রাখতে সম্পুরক শুল্ক কাঠামোতে সংস্কারের প্রস্তাব করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত।

সিগারেটের ওপর ৪৮ শতাংশ শুল্ক আরোপের প্রস্তাব করায় দাম বাড়বে সব ধরণের তামাকজাত পণ্যের দাম, ৫ শতাংশ শুল্ক আরোপের কারণে বাড়বে আমদানিকৃত চায়ের দাম, মোবাইল অপারেটরদের সিমকার্ড ইস্যুতে শুল্ক আরোপের প্রস্তাবের পাশাপাশি ৫ শতাংশ শুল্ক আরোপের প্রস্তাব করা হয়েছে সিম আর রিমকার্ডের উপরও। বাড়বে এলসিডি,এলইডি টেলিভিশন,সিরামিকের বাথ শাওয়ার, বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের শিক্ষা ব্যয়, সিরামিকের বাথটাব, শাওয়ার।

মুল্য সংযোজন কর ২ থেকে বাড়িয়ে ৪ শতাংশ করায় বাড়বে সুপারশপে কেনাকাটা ব্যয়। মূসক অব্যাহতি তুলে নেয়ায় বাড়বে আয়ুর্বেদিক, ইউনানি, ও ভেষজ ঔষধের দাম। বাড়বে, প্লাস্টিকের টিস্যু হোল্ডার, আইস ট্রে, হ্যাংগারের দাম। অতিরিক্ত শুল্ক আরোপ করায় বাড়বে অনলাইনে কেনাকাটা ব্যয়, মটর সাইকেল, মাখন, হিমায়িত চিংড়ি, শুকনা শুপারি, রং ও বার্ণিশের দাম। শুল্ক বাড়ানোর প্রস্তাব করায় বাড়বে বিদেশি সবজি, মাছ, গাড়ির সিট কভার, কাঁচের আয়না, ইমিটেশন জুয়েলারি, ও চিনির দাম।

এছাড়াও বাড়বে, আমদানি করা টায়ারের দাম, ভবন নির্মাণ ব্যয়, ইন্টারনেট সংযোগের ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় অপটিক্যাল ফাইবারের দামও।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked with *

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক মন্তব্য