মৌলবাদী গোষ্টীর সাথে সরকারের আপোষ নীতির বিরুদ্ধে প্যারিসে বিভিন্ন প্রগতিশীল সংগঠনের প্রতিবাদ

মৌলবাদী গোষ্টীর সাথে সরকারের আপোষ নীতির বিরুদ্ধে প্যারিসে বিভিন্ন প্রগতিশীল সংগঠনের প্রতিবাদ

অনুপম বড়ুয়া টিপু,প্যারিস থেকে: পাঠ্য পুস্তক সাম্প্রদায়িকীকরণ, ভাস্কর্য অপসারণ, কওমি মাদ্রাসার অন্যায্য মর্যাদা দান সহ উগ্র ধর্মান্ধ গোষ্ঠীর কাছে সরকারের আত্মসমর্পণের বিরুদ্ধে এবং আন্দোলনকারী নেতা কর্মীদের উপর মিথ্যা মামলা, নারায়ণগঞ্জের সাম্প্রতিক সময়ে রবীন্দ্র জয়ন্তীতে বাধা দেওয়া, নারায়ণগন্জের সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব রফিউর রাব্বীকে মৌলবাদীদের হুমকি, উদ্দেশ্য মূলক ভাবে শিক্ষক শ্যামল কান্তি ভক্তের বিরুদ্ধে ধারাবাহিক ভাবে অপমান সহ মিথ্যা মামলায় সরকারের নীরব ভূমিকা, অন্যায়ভাবে মানবাধিকার কর্মী মুক্তিযোদ্ধা ও বিশিষ্ট নাগরিক অ্যাডভোকেট সুলতানা কামাল-এর বক্তব্য উদ্দেশ্য মূলক ভাবে বিকৃত করে সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠীর হুমকি ও ঔদ্ধত্য পূর্ণ দাবি এবং দেশকে একটি অস্থিতিশীল পরিস্থিতির দিকে ঠেলে নেওয়া এবং লংগদু উপজেলায় আদিবাসীদের উপর সাম্প্রদায়িক হামলা ও অগ্নিসংযোগের বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিবাদে এবং সরকারের প্রশ্রয়ে উগ্র সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠীর এই সকল কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে অসাম্প্রদায়িক সকল মানুষের ঐক্যবদ্ধ প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বানে সম্মিলিত প্রতিবাদ সমাবেশ গত ১৯ জুন সোমবার অনুষ্টিত হয়।

ফ্রান্সের প্যারিসের রিপাবলিক চত্বরে বিকেল ৪ টায় অনুষ্ঠিত এই সভায় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশি কমিউনিটির অনেকেই।

উদীচী ফ্রান্স সংসদের সভাপতি কিরণময় মণ্ডলের সভাপতিত্বে ও যুব ইউনিয়নের ফ্রান্স শাখার সভাপতি অ্যাডভোকেট রামেন্দু কুমার চন্দ এর সঞ্চালনায়
অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন মাসুদ মিয়া মামুন, শাখাওয়াত হোসেন হাওলাদার, উজ্জীবন চাকমা,অনুপম বড়ুয়া টিপু, শিপন প্লাসিড,রোজি মজুমদার, , ফাহাদ রিপন, রহমত উল্লাহ, জুয়েল দাস লেনিন প্রমুখ।

সংহতি প্রকাশ করেন সাগর বড়ুয়া, টিপু বড়ুয়া,পলাশ বড়ুয়া

অংশগ্রহণকারীরা দেশের উগ্র ধর্মান্ধ গোষ্ঠীর তৎপরতায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেন প্রগতিশীল
জনগোষ্ঠী কে ঐক্যবদ্ধতা কামনা করা হয়।

বক্তারা আরো বলেন, মৌলবাদী গোষ্ঠীর সাথে সরকারের আপস ও আত্মসমর্পণের ঘটনার প্রতিবাদে একটি ব্যাপক গণআন্দোলন প্রয়োজন। যে আন্দোলন সামগ্রিকভাবে আমাদের মুক্তিযুদ্ধের আদর্শ ও অর্জনের সাথে সম্পৃক্ত। সরকারের এ জাতীয় পদক্ষেপ যেমন পাঠ্যপুস্তক সাম্প্রদায়িকীকরণ, নববর্ষ ও মঙ্গল শোভাযাত্রার ওপর আক্রমণ, পহেলা বৈশাখের অনুষ্ঠান সংকুচিত করা, ভাস্কর্য অপসারণ, মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনার পরিপন্থী ও জাতির মননশীলতাকে আরো পেছনে নিয়ে যাবে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked with *

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক মন্তব্য