রায়গঞ্জে আদিবাসী চার মহিলাকে ধর্ষণ: মন্ত্রীর পদত্যাগের দাবি

রায়গঞ্জে আদিবাসী চার মহিলাকে ধর্ষণ: মন্ত্রীর পদত্যাগের দাবি

রায়গঞ্জে আদিবাসী চার মহিলাকে ধর্ষণ ও রাজ্যের বিভিন্ন এলাকায় মহিলাদের নিরাপত্তা বিঘ্নিত হওয়ার ঘটনার প্রতিবাদে বিক্ষোভ দেখাল আদিবাসী সম্প্রদায়ের মানুষ।তাঁরা উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন দফতরের রাষ্ট্রমন্ত্রী বাচ্চু হাঁসদার পদত্যাগের দাবি জানিয়েছে৷

ঝাড়খণ্ড দিশম পার্টির ডাকে এদিন দক্ষিণ দিনাজপুরের বিভিন্ন এলাকা থেকে তিরধনুক লাঠি ঝাঁটা কুড়ল ও রামদা নিয়ে আদিবাসিরা মিছিল করে বালুরঘাট শহর পরিক্রমা করল প্রায় হাজার তিনেক আদিবাসী পুরুষ ও মহিলা। মিছিল করে গিয়ে তাঁরা জেলাপ্রশাসনিক ভবনের সামনে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন।

বিক্ষোভকারীদের বক্তব্য, রায়গঞ্জে গত ৯ জুলাই আইএনটিটিইউসি’র ঘরে তাঁদের চার মহিলাকে ধর্ষন করা হলেও মন্ত্রী হিসেবে কোন প্রতিবাদ করেননি বাচ্চু হাঁসদা৷ শুধু তাই নয় বিভিন্ন দফতরের কর্মী নিয়োগের ক্ষেত্রেও আদিবাসী বেকারদের সুযোগ না দিয়ে অর্থের বিনিময়ে সেখানে অন্যদের চাকরি দিয়েছেন বলেও অভিযোগ করেন বিক্ষোভকারীরা৷ তবে মন্ত্রী বাচ্চু হাঁসদা তাঁর বিরুদ্ধে সমস্ত অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিয়েছেন।

আদিবাসীদের কর্মসূচি উপলক্ষে এদিন পুলিশি ব্যবস্থা ছিল চোখে পরার মতো। জেলার সমস্ত থানার কয়েকশো সাধারন পুলিশের পাশাপাশি অ্যাডিশনাল এসপি, ডিএসপি ও এসডিপিও সকলেই বালুরঘাটে জেলাপ্রশাসনিক ভবনের বাইরে ও ভেতরে মোতায়েন করা হয়েছিল। এমনকি সমগ্র পুলিশি ব্যাবস্থা সেই সঙ্গে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক রাখতে খোদ পুলিশ সুপার প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায় নিজে রাস্তায় দাঁড়িয়ে সবকিছু পরিচালনা করেছেন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked with *

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক মন্তব্য