সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলনের চতুর্থ জাতীয় সম্মেলন সম্পন্ন

সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলনের চতুর্থ জাতীয় সম্মেলন সম্পন্ন

২৯ডিসেম্বর শুক্রবার ঢাকায় সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলনের চতুর্থ জাতীয় সম্মেলন সম্পন্ন হয়েছে।উদ্ধোধনের পর রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা পর্বের আগে ইনস্টিটিউশন প্রাঙ্গণে জাতীয় পতাকা ও বেলুন উড়িয়ে সম্মেলনের উদ্বোধন করা হয়।
আলোচনায় বক্তারা বলেন, নারী-শিশু নির্যাতন, সাম্প্রদায়িক ঘটনা, প্রান্তিক জনগোষ্ঠীকে অত্যাচারের বিরুদ্ধে সব সময় সোচ্চার থাকবে সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলন।
সংগঠনটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জিয়াউদ্দিন তারেক আলীর সভাপতিত্বে আলোচনায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইমেরিটাস অধ্যাপক আনিসুজ্জামান বলেন, ‘সাম্প্রদায়িকতা ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে আমাদের শক্তভাবে দাঁড়াতে হবে। আমাদের সব গণতান্ত্রিক শক্তির ঐক্য গড়ে তুলতে হবে। তা না হলে আমরা সময়-সময় যা কিছু অর্জন করি, সেটা ধরে রাখতে পারব না।’

ঐক্য ন্যাপের সভাপতি ও সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলনের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য পঙ্কজ ভট্টাচার্য বলেন, ‘সাম্প্রদায়িকতা আমাদের প্রতিবন্ধকতা। বিচারহীনতার সংস্কৃতি যখন এর হাত ধরাধরি করে চলে, তখন এটি আরও শক্তিশালী হয়।’

সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা সুলতানা কামাল বলেন, ‘বাংলাদেশ নানা ক্ষেত্রে, নানা সূচকে বিশ্বে অবস্থান তৈরি করে নিয়েছে। কিন্তু অত্যন্ত দুঃখের সঙ্গে বলতেই হয়, সুশাসন এবং মানবাধিকারের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ অনেক পিছিয়ে গেছে। নৈতিকতার দিক থেকে বিবেচনা করা হলে সেখানে অনেক খাদ রয়ে গেছে, সেই খাদ আমরা পূরণ করতে পারছি না।’

সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব রামেন্দু মজুমদার বলেন, নৈতিকতার অবনতি ও মানবিকবোধের অবনমনের কারণে দুর্বৃত্তায়ন শক্তিশালী হয়েছে। তিনি সাম্প্রদায়িক হামলার সময় আশপাশে থাকা প্রতিবেশীদের হামলা প্রতিরোধে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

আলোচনার শুরুতে শোক প্রস্তাব উত্থাপন করেন সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলনের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য নূর মোহাম্মদ তালুকদার। ঘোষণাপত্র পাঠ করেন মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের ট্রাস্টি সারওয়ার আলী।

এ ছাড়া বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য মনজুরুল আহসান খান, জাসদের সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির পলিটব্যুরো সদস্য আনিসুর রহমান মল্লিক, জনসংহতি সমিতির সাংগঠনিক সম্পাদক শক্তিপদ ত্রিপুরা প্রমুখ বক্তব্য দেন। সঞ্চালনা করেন বাংলাদেশ ছাত্র মৈত্রীর সাবেক সভাপতি বাপ্পাদিত্য বসু।
কমিটি গঠন
বিকেলে সম্মেলনের তৃতীয় অধিবেশনে নতুন কমিটি গঠন করা হয়। ১৩১ সদস্যের নতুন কমিটিতে জিয়াউদ্দিন তারেক আলী সভাপতি, সালেহ আহমেদ সাধারণ সম্পাদক ও অধ্যাপক আনিসুজ্জামান উপদেষ্টা হয়েছেন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked with *

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক মন্তব্য