দীঘিনালায় ত্রিপুরা শিশু ধর্ষণ ও মরদেহ উদ্ধার : সড়ক অবরোধ

দীঘিনালায় ত্রিপুরা শিশু ধর্ষণ ও মরদেহ উদ্ধার : সড়ক অবরোধ

খাগড়াছড়ির দীঘিনালাতে দশ বছর বয়সী এক ত্রিপুরা শিশুর হাতকাটা লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। পুলিশ ধারণা করছে শিশুটিকে ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে।

খাগড়াছড়ি-দীঘিনালা সড়কের পাশের একটি জঙ্গল থেকে শনিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। থানা থেকে পরিচয় জানানো হয় লাশটি কৃর্তিকা ত্রিপুরা ওরফে পূর্ণার। কৃর্তিকা দীঘিনালা এলাকার নরোত্তম ত্রিপুরার মেয়ে। নয় মাইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণীর শিক্ষার্থী ছিল সে।

দিঘীনালা থানা থেকে জানানো হয়, শনিবার দুপুরে টিফিনের সময় স্কুল থেকে বাড়িতে খাবার খেতে আসে কৃর্তিকা। খাবার খেয়ে আবার স্কুলে রওনা হয় সে। সন্ধ্যা নাগাদ বাড়ি না ফেরায় তার মা খোঁজ নিয়ে জানতে পারেন কৃর্তিকা আর স্কুলে যায়নি। পরে বিষয়টি এলাকাবাসীকে জানানো হলে তারা বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি শুরু করেন। পরে বাড়ির পাশের একটি জঙ্গলে কৃর্তিকার হাত কাটা ও বিবস্ত্র লাশের খোজ পেলে এলাকাবাসী থানায় খবর দেয়। পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালে পাঠায়। নিহতের শরীরের বিভিন্ন অংশে ধারালো অস্ত্রের আঘতের চিহ্ন রয়েছে। তাকে হত্যার আগে ধর্ষণ করা হয়েছে বলে সুরতহাল প্রতিবেদনে আলামত পাওয়া গেছে বলেও জানায় পুলিশ।

এ ঘটনার প্রতিবাদে বিক্ষুদ্ধ এলাকাবাসী রোববার সকাল ৮টার দিকে গাছের গুঁড়ি ফেলে খাগড়াছড়ি-দীঘিনালা সড়ক অবরোধ করে। এতে সাড়ে চার ঘণ্টা ওই সড়কে যান চলাচল বন্ধ ছিল।
পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked with *

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক মন্তব্য