আগামীকাল ঢাবিতে পিসিপির নবীন বরণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান

আগামীকাল ঢাবিতে পিসিপির নবীন বরণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান

ঢাবি প্রতিনিধি: আগামীকাল ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং রোজ শুক্রবার পাহাড়ী ছাত্র পরিষদ, ঢাকা মহানগর শাখার উদ্যোগে আয়োজিত হচ্ছে ঢাবি,জাবি,জবি সহ ঢাকাস্থ বিভিন্ন উচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক (সম্মান),এমবিবিএস, ডেন্টাল,ডিপ্লোমা, ইঞ্জিনিয়ারিং ও পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে ভর্তি হওয়া জুম্ম শিক্ষার্থীদের নবীন বরণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।প্রতিবছর এই অনুষ্ঠানটি ঢাকাস্থ জুম্ম শিক্ষার্থী ও অভিবাবকদের এক ধরণের মিলনের জায়গায় পরিণত হয় বলে জানান আয়োজকরা।
এবছরের আয়োজনে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থাকবেন জনসংহতি সমিতির সহ-সভাপতি ও পার্বত্য রাঙ্গামাটির সাংসদ শ্রী ঊষাতন তালুকদার, সম্মানিত অতিথি হিসাবে থাকবেন আদিবাসীদের অধিকার আন্দোলনের অন্যতম কন্ঠস্বর ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড.মুহম্মদ সামাদ। এছাড়া বিশেষ অথিতি হিসাবে উপস্থিত থাকবেন আদিবাসী ফোরামের সাধারন সম্পাদক বিশিষ্ট আদিবাসী নেতা সঞ্জিব দ্রং এবং জনসংহতি সমিতির তথ্য ও প্রচার বিভাগের অন্যতম সদস্য শ্রী দীপায়ন খীসা ও পাহাড়ী ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় সভাপতি ছাত্রনেতা জুয়েল চাকমা প্রমূখ।এছাড়া উপস্থিত থাকবেন পাহাড়ী ছাত্র পরিষদের ঢাকাস্থ বিভিন্ন শাখার নেতৃবৃন্দ, ভাতৃপ্রতীম বিভিন্ন প্রগতিশীল সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।
অনুষ্ঠানটি শুরু হবে বিকাল ৩.৩০ ঘটিকার সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি’র মিলনায়তনে। আলোচনা সভা ও নবীনদের বরণের পর শুরু হবে পাহাড়ের আদিবাসীদের বর্ণাঢ্য সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।
উক্ত অনুষ্ঠানে পাহাড়ের আদিবাসীদের ভিন্ন ভাষার গান, নৃত্য ও বিশেষ প্রদর্শনী পরিবেশিত হবে।গান পরিবেশন করবেন আদিবাসী নারীদের ব্যান্ড এফ মাইনর ও নৃত্য পরিবেশন সহ বিশেষ প্রদর্শনী প্রদর্শন করবেন বাংলাদেশ আদিবাসী কালচারাল ফোরাম ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় জুম লিটারেচার এন্ড কালচারাল সোসাইটি সহ অন্যান্য শিল্পীরা।
অনুষ্ঠানটির অন্যতম আয়োজক পাহাড়ী ছাত্র পরিষদের ঢাকা মহানগর শাখার সাধারণ সম্পাদক অমর শান্তি চাকমা জানান, ”পাহাড়ী ছাত্র পরিষদ পাহাড়ের আদিবাসীদের বিভিন্ন দাবী-দাওয়া রাজপথের মিছিলের মাধ্যমে যেমন তুলে ধরে তেমনি লড়াইয়ের ময়দানে তরুণদের সম্পৃক্ত করে গণতান্ত্রিক সংগ্রামকে বিকাশের জন্য নবীন বরণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মত সৃষ্টিশীল আয়োজনের মাধ্যমে পাহাড়ের আদিবাসীদের কথাগুলো তুলে ধরার প্রয়াস চালিয়ে যাচ্ছে।”
এবারের নবীন বরণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন পাহাড়ী ছাত্র পরিষদের ঢাকা মহানগর শাখার সভাপতি নিপন ত্রিপুরা। তিনি ঢাকাস্থ সকল জুম্ম শিক্ষার্থী, অভিবাবক এবং অপরাপর গণতন্ত্রমনা ও অসাম্প্রদায়িক প্রগতিশীল আদর্শের মানুষদের এ আয়োজনে উপস্থিত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন।এবারের মূল স্লোগান নির্ধারিত হয়েছে- ”শেকলে বাঁধা বন্দী জীবন আর কতকাল, ক্ষণ এসেছে নবীন শৃঙ্খল ভাঙার, ঘুচাও ক্রান্তিকাল।

সকল পোস্ট

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked with *

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক মন্তব্য