প্রয়োজনে নির্বাচন বয়কট করে আন্দোলনের জন্য প্রস্তুত বাম গণতান্ত্রিক জোট

প্রয়োজনে নির্বাচন বয়কট করে আন্দোলনের জন্য প্রস্তুত বাম গণতান্ত্রিক জোট

প্রয়োজনে নির্বাচন বয়কট করে আন্দোলনের জন্যও প্রস্তুত বলে জানিয়েছেন বাম গণতান্ত্রিক জোট। মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭ টা থেকে রাত ১০ টা পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রীর সাথে সংলাপে পর জোটের অন্যতম নেতা বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম জোটের পক্ষে একথা জানান।

প্রধানমন্ত্রীর সাথে সংলাপে বাম গনতান্ত্রিক জোট সংসদ ভেঙে দিয়ে নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ তদারকি সরকার গঠন, নির্বাচন কমিশন পুর্নগঠন, মিথ্যা-গায়েবি মামলা বন্ধ করে অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনের গণতান্ত্রিক পরিবেশ নিশ্চিত করার দাবি জানিয়েছে।

সংলাপ শেষে সাংবাদিকদের মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বলেন, ‘আমরা আমাদের বক্তব্য সুস্পষ্টভাবে প্রধানমন্ত্রীর কাছে তুলে ধরেছি। এখন বল তার কোর্টে। তিনি এগুলো বিবেচনা করে কি সিদ্ধান্ত নেন তার ওপর নির্ভর করছে আগামী নির্বাচন অংশগ্রহণমূলক হবে কি হবে না।’

তিনি বলেন, ‘আমরা নির্বাচনে অংশগ্রহণের জন্য প্রস্তুত আছি। পরিস্থিতি অনুকূল না হলে সেটা বয়কট করার জন্যও প্রস্তুত আছি।’

সংলাপে সংসদ ভেঙে দিয়ে নির্বাচনকালীন সরকার গঠন, নির্বাচন কমিশন পুর্নগঠন, ইভিএম ব্যবহার না করা, মিথ্যা-গায়েবি মামলা ও বিরোধী জোটের ওপর দমন-পীড়ন বন্ধসহ জোটের বিভিন্ন দাবি-দাওয়া প্রধানমন্ত্রীর কাছে তুলে ধরা হয়েছে বলে সাংবাদিকদের জানান বাম গণতান্ত্রিক জোটের সমন্বয়ক বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক।

সাইফুল হক বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলনের পরে তিনি কিভাবে দেখছেন তার ওপর নির্ভর করে আমরা আমাদের আন্দোলনে করণীয় ও রাজনৈতিক করণীয় নির্ধারণ করবো।’

তিনি বলেন, ‘আমরা নির্বাচন করতে চাই, নির্বাচনের জন্য গণতান্ত্রিক পরিবেশ তৈরি করার জন্য সংলাপ করছি, রাজপথে ধারাবাহিকভাবে আন্দোলন করছি।’

অন্যদের মধ্যে সংলাপে উপস্থিত ছিলেন-সিপিবি সাধারণ সম্পাদক মো. শাহ আলম, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দলের (বাসদ) সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামান, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য বজলুর রশীদ ফিরোজ, বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির পলিটব্যুরোর সদস্য আকবর খান, বাসদের (মার্কসবাদী) কেন্দ্রীয় পরিচালনা কমিটি সদস্য শুভ্রাংশু চক্রবর্তী ও আলমগীর হোসেন দুলাল, গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি, রাজনৈতিক পরিষদের সদস্য ফিরোজ আহমেদ, ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগের সাধারণ সম্পাদক মোশাররফ হোসেন নান্নু, আব্দুস সাত্তার, গণতান্ত্রিক বিপ্লবী পার্টির সাধারণ সম্পাদক মোশরেফা মিশু, কেন্দ্রীয় কমিটি সদস্য মোমিনুর রহমান বিশাল, সমাজতান্ত্রিক আন্দোলনের আহ্বায়ক হামিদুল হক ও কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য রনজিৎ কুমার সংলাপে উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked with *

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক মন্তব্য